জীবন দর্শন ভ্রমন স্বাস্থ্য ইতিহাস অনুপ্রেরণা চাকরি জানা-অজানা বিশেষ প্রতিবেদন সাক্ষাৎকার

হিরো হওয়ার জন্য বাড়ি থেকে পালিয়েছিলাম: দেব দীপ

0

তরুণ প্রজন্মের সম্ভাবনাময় মডেল ও অভিনেতা দীপ দত্ত। তিনি অবশ্য সবার কাছে দেব দীপ নামেই অধিক পরিচিত। মডেল হিসেবে অভিনয় করেছেন প্রাণ-আরএফএলসহ বেশ কিছু কোম্পানীর জনপ্রিয় সব বিজ্ঞাপনে। দেশের সেরা সেরা বিভিন্ন ফ্যাশন হাউজের মডেল হয়েছেন তিনি। অভিনয় করেছেন বেশ কিছু নাটক, টেলিফিল্ম ও মিউজিক ভিডিওতে। দীপ এমন একজন মানুষ যে মানুষের সাথে মিশতে ভালোবাসে, ভালো মানুষদের সঙ্গ পেতে ভালোবাসে। তিনি ভালোবাসেন সিনেমা দেখতে। তরুণ এই মডেল-অভিনেতার গ্রামের বাড়ি যশোর জেলায়। যশোরের দানবীর হাজী মুহাম্মদ মহসীন স্কুল থেকে এসএসসি এবং আলহেরা ডিগ্রি কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করেছেন তিনি। স্নাতক সম্পন্ন করেছেন ঢাকার কবি নজরুল কলেজ থেকে। কন্ঠ ৭১’র সাথে দেব দীপ’র কথা হলো তার কিছু ভালো লাগার বিষয় নিয়ে। চলুন জেনে নেই অজানা সেই তথ্যগুলো।

কন্ঠ ৭১: আপনার শখ কি?
দেব দীপ: পারফিউম কালেক্ট করা।

কন্ঠ ৭১: পছন্দের খাবার?
দেব দীপ: রুটি, মাংস এবং সবজি।

কন্ঠ ৭১: পছন্দের পোশাক সম্পর্কে কিছু বলেন।
দেব দীপ: জিন্স প্যান্ট, টি-শার্ট এবং শার্ট।

কন্ঠ ৭১: পছন্দের পারফিউম?
দেব দীপ: হোগে বস।

কন্ঠ ৭১: পছন্দের ঘড়ি?
দেব দীপ: টাইটান।

কন্ঠ ৭১: পছন্দের সঙ্গীত শিল্পীকে? (দেশী এবং বিদেশী)
দেব দীপ: সুবীরনন্দি, কুমার বিশ্বজিৎ, এন্ড্রু কিশোর, রুণা লায়লা, সাবিনা ইয়াসমিন, কণক চাঁপা, রাহুল দেব বর্মণ, রাহাত ফতে আলী খান, কুমার শানু, উদিত নারায়ণ, শ্রেয়া ঘোষাল।

কন্ঠ ৭১: পছন্দের সঙ্গীত পরিচালক? (দেশী এবং বিদেশী)
দেব দীপ: এ আর রহমান, ইমন সাহা।

কন্ঠ ৭১: পছন্দের চলচ্চিত্র?
দেব দীপ: পথের পাঁচালী।

কন্ঠ ৭১: পছন্দের অভিনেতা-অভিনেত্রী? (দেশী এবং বিদেশী)
দেব দীপ: রাইসুল ইসলাম আসাদ, চম্পা।

কন্ঠ ৭১: পছন্দের পরিচালক? (দেশী এবং বিদেশী)
দেব দীপ: সত্যজিৎ রায়, আমজাদ হোসেন।

কন্ঠ ৭১: খেলাধুলা কি পছন্দ করেন? যদি করেন তাহলে পছন্দের খেলা এবং খেলোয়ারের নাম বলেন।
দেব দীপ: ক্রিকেট। মাশরাফি বিন মর্তুজা।

কন্ঠ ৭১: পছন্দের গান?
দেব দীপ: সব ধরণের গানই ভালো লাগে।

কন্ঠ ৭১: পছন্দের রং?
দেব দীপ: সাদা-কালো।

কন্ঠ ৭১: পছন্দের লেখক ও বই?
দেব দীপ: হুমায়ুন আহমেদ স্যার এবং তার জোৎস্না জননী।

কন্ঠ ৭১: ছোট সময়ের স্মৃতি, যা আপনার এখনো মনে পরে?
দেব দীপ: আমি তখন দশম শ্রেণীর ছাত্র। হিরো হওয়ার জন্য এসেছিলাম এফডিসিতে, তাও বাসা থেকে পালিয়ে।  সারাদিন দাড়িয়ে ছিলাম গেটের বাইরে। এরই মাঝে সকাল ১১টার দিকে একজন লোক আসেন এফডিসির ভিতর থেকে। তিনি আমাকে আমার সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে চায়। আমাকে ভয় দেখিয়ে আমার কাছ থেকে সব টাকা নিয়ে যায়। আমার কাছে ২০০০ এর কিছু বেশি টাকা ছিলো। খালি পকেটে সারাদিন দাড়িয়েছিলাম। রাতে হিরো হওয়ার স্বপ্ন ভঙ্গ মন নিয়ে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিলাম।

কন্ঠ ৭১: পাঠকদের উদ্দেশ্যে কিছু বলেন।
দেব দীপ: আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন, যেন আমি সবসময় ভালো ভালো কাজ আপনাদের উপহার দিতে পারি। ভালো অভিনয় করতে পারি। আপনারা বাংলাদেশের সাথে থাকুন, বাংলাদেশের চলচ্চিত্র, নাটক এবং চ্যানেলের সাথে থাকুন। বাংলাদেশকে ভালোবাসুন।

কন্ঠ ৭১: গ্রামের বাড়ি, বাবা-মা, ভাই-বোন সম্পর্কে বলেন।
দেব দীপ: আমি যশোরের ছেলে। আমি আমার গ্রামের বাড়ি যশোরকে ভালোবাসি। আমি যশোরের মানুষকে ভালোবাসি। আমরা দুই ভাই এবং দুই বোন। আমি ভাইদের মধ্যে বড়। বাবা ব্যবসায়ি এবং মা গৃহিনী।

ফেইসবুক মন্তব্য

Leave A Reply