জীবন দর্শন ভ্রমন স্বাস্থ্য ইতিহাস অনুপ্রেরণা চাকরি জানা-অজানা বিশেষ প্রতিবেদন সাক্ষাৎকার

মহেশপুর-কোটচাঁদপুরে আওয়ামী লীগের সমাবেশে খাদ্যে বিষক্রিয়া হলো কিভাবে?

0


আব্দুল্লাহ আল মাসুদ
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি:

আগামী সংসদ নির্বাচন কে সামনে রেখে দিন যতই যাচ্ছে ঝিনাইদহ-৩( মহেশপুর-কোটচাঁদপুর) আসনে ক্ষমতাশীন দল আওয়ামী লীগের কোন্দল ততই স্পষ্ট হতে শুরু করেছে বলে মনে করছে কর্মী-সমর্থরা। বিশেষ করে পর পর দু’দিন আওয়ামী লীগের দুটি সমাবেশে খাবারে পয়জনিং ও তা খেয়ে কয়েকশ কর্মীর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার ঘটনা উদ্বেগ-আতঙ্কের সৃষ্টি করেছে দলটির মধ্যে।

সফলভাবে স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১ উৎক্ষেপন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে এ দুটি সমাবেশ, আনন্দ মিছিল ও র‌্যালীর আয়োজন করেছিল সাবেক এমপি নারী নেত্রী পারভীন তালুকদার মায়া। প্রথম সমাবেশটির আয়োজন করা হয়েছিল মহেশপুর অডিটোরিয়াম মাঠে। সেখানে আনন্দ মিছিল ও সমাবেশে ৫সহস্রাধীক কর্মী-সমর্থকের আগমন ঘটে। তরুন ভোটার ও নারীদেও অংশগ্রহণ ছিল উল্লেযোগ্য। এমন স্বত:স্ফুর্ত অংশগ্রহণ যা ছিল বিরোধপূর্ণ মহেশপুর- কোটচাঁদপুর আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে লক্ষনীয়।

মহেশপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ময়জুদ্দিন হামিদের সভাপতিত্বে এই সমাবেশে প্রধান অতিথী ছিলেন সাবেক সাংসদ নারী নেত্রী পারভীন তালুকদার মায়া। তিনি এবার ঝিনাইদহ ৩ মহেশপুর-কোটচাঁদপুর আসনে আওয়ামী লীগের অন্যতম মনোনয়ন প্রত্যাশী। সেদিনের সমাবেশ শেষে শেষ বিকালে বাড়ি ফেরার পথে কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে বিরিয়ানীর প্যাকেট দেয়া হয়। আর তা খেয়ে শতাধীক কর্মী অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয় । সরেজমিনে সেদিন এলাকা ঘুরে ও কর্মীদের সাথে কথা বলার সময় তারা জানায় খাবার নিন্মমানের বা খারাপ ছিল না। আর খারাপ বা নিন্ম মানের হলে ৫ শহস্রাধীক মানুষই অসুস্থ হয়ে পড়ত। তা কেন হলো না, কিছু মানুষ কেন অসুস্থ হলো , উল্টো এমন প্রশ্ন সমাবেশে আগতদের মধ্যে ।

এদিকে বুধবারও অনুরুপ সমাবেশের আয়োজন করা হয় কোটচাঁদপুর উপজেলার কোটচাঁদপুর বাসস্ট্যান্ডে। সেখানেও কয়েক হাজার নেতা-কর্মী ও সমর্থকের সমাগম ঘটে। দুপুর ১ টার দিকে জেলার কোটচাদপুর উপজেলা শহরের মেইন বাসস্টান্ডে উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক হুমায়ন কবির লতার সভাপতিত্বে পারভীন তালুকদার মায়ার নেতৃত্বে একটি জনসভা অনুষ্ঠিত হয়। শেষে শহরে একটি র‌্যালী বের করা হয়। এরপর বিকাল ৩ টার দিকে দলীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে বিরিয়ানী সরবরাহ করা হয়। এই খাবার খেয়ে সন্ধ্যা থেকে অসুস্থ্য হয়ে ২শতাধিক কর্মী-সমর্থক হাসপাতালে ভর্তি হয়, বৃহস্পতিবার সকালেও অনেকে হাসপাতালে ভর্তি হয় । এসব নিয়ে আওয়ামী লীগ তো ছাড়াও বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও শ্রেণী-পেশার মানুষের মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে ।

প্রসঙ্গত ঝিনাইদহ-৩ ( মহেশপুর-কোটচাঁদপুর) আসনে আগামী সংসদ নির্বাচন কে ঘিরে স্থানীয় নেতা-কর্মীদের মধ্যে বিভেদ, কোন্দল প্রকাশ্য রুপ পেয়েছে। আসনটির বর্তমান সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ নবী নেওয়াজ, সাবেক সংসদ সদস্য এড.শফিকুল আজম খাঁন চঞ্চল ও সংরক্ষিত আসনের সাবেক সাংসদ পারভীন তালুকদার মায়া এ ৩নেতার মধ্যে সাপে-নেওলে সম্পর্ক বিরাজ করছে। নেতা-কর্মীরা যথারীতি থেকে ৩ থেকে ৫টি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে পড়েছে। বিরোধী কোন রাজনৈতিক দল নয় এখন নিজদলীয় নেতারাই একে অপরের প্রতিপক্ষ হয়ে উঠেছে এমন অভিযোগ কর্মী ও স্থানীয় নেতাদের ।

মহেশপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ময়জুদ্দিন হামিদ বলেন, জায়ামাত-বিএনপি নির্ভর হয়ে পড়েছে দলের অনেক নেতা । যারা আদৌ আওয়ামী লীগের মঙ্গল চায় না, সুসময়ে এসে দলের বিভিন্ন পদপদবী বাগিয়ে নিজের স্বার্থ উদ্ধারে ব্যস্ত থাকে। তিনি বলেন গত ৫বছরে এলাকায় উন্নয়নের ছোয়া ঘটেনি বরং নানাভাবে নির্যাতিত হয়েছে প্রকৃত নেতা-কর্মী । আওয়ামীলীগের এই নেতা বলেন পারভীন তালুকদার মায়া দলীয় নেতা-কর্মীদেও মধ্যে ইমেজ সৃষ্টি করতে পেরেছেন, তিনি দলের জন্য ব্যাপকভাবে সাংগঠনিক কাজ করে চলেছেন। তার জনপ্রিয়তায় ইর্ষান্বিত হয়ে জনস্রোত ঠেকাতে খাদ্যে বিষ বা পয়জন দেয়ার মতো ঘটনা ঘটাতে পারে কোন মহল।

আর দলের মধ্যে কোন্দলের কারণেই সমাবেশে খাদ্যে পয়জন বা বিষক্রিয়া ঘটিয়ে কেউ এমন সাবোটাজ করতে পারে বলে সন্দেহ করছেন সাবেক এমপি মনোনয়ন প্রত্যাশী পাভীন তালুকদার মায়া । তিনি অভিযোগ করছেন, আগের দিনেও সমাবেশ শেষে খাবার খেয়ে কিছুকর্মী একই ভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েছিল।

বৃহস্পতিবার দুপুরে পারভীন তালুকদার মায়া নিজ বাসভবন জিন্নাহনগরে গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে অভিযোগ করেন, নৌকা কে ভালবেসে, দল কে ভালবেসে নেতা-কর্মীরা তার সাথে থাকছেন, নতুন নতুন নেতা-কর্মীও তারসঙ্গী হচ্ছেন, এভাবে জনস্রোত তৈরী হয়েছে। সেই আতঙ্কে কোটচাঁদপুরের সমাবেশ বানচাল করতে ১৪৪ধারা সৃষ্টির পায়তারা করেছিল বর্তমান সংসদ সদস্যের কিছু নেতা-কর্মী। হাজার হাজার কর্মী-সমর্থক দেখে অনেকের মাথা খারাপ হয়ে গেছে উল্লেখ করে তিনি প্রশাসনের নিকট সুষ্ঠ তদন্ত ও ঘটনার বিচার দাবি করেছেন।

ফেইসবুক মন্তব্য

Leave A Reply